বুধবার ১২ জুন ২০২৪ ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অ্যালকোহল কোম্পানির লোগো গায়ে জড়াননি মুস্তাফিজ
প্রকাশ: শনিবার, ২৩ মার্চ ২০২৪, ১২:৪১ অপরাহ্ণ

শেষবার কবে মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে এমন হইচই পড়েছিল, সেটা হয়ত ভুলতেই বসেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্তরা। বিগত দুটা বছর দেশের ক্রিকেটে একেবারেই সাদামাটা এক নাম ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। একের পর এক ম্যাচে ব্যর্থ হয়েছেন। রানের পর রান দিয়ে গেলেও উইকেটের দেখা পাননি। হতাশ করেছেন বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে। ডেথ ওভারে নিজের কার্যকারীতা নিয়েও এসেছে প্রশ্ন।

কিন্তু সব প্রশ্ন উড়িয়ে দিয়ে দুর্দান্ত এক স্পেল দিয়ে ২০২৪ সালের নিজের আইপিএল মিশন শুরু করেছেন বাংলাদেশের এই পেসার। ২৯ রানে ৪ উইকেট নিয়ে চেন্নাইয়ের জয়ে সরাসরি ভূমিকা রেখেছেন মুস্তাফিজ। ম্যাচ শেষেও তাকে নিয়ে আলোচনার শেষ নেই।

ম্যাচশেষে চেন্নাইয়ের অধিনায়ক রুতুরাজ গায়কোয়াড় সরাসরিই উল্লেখ করেছেন মুস্তাফিজের কথা, ‘শুরুর ২-৩ ওভার এলোমেলো হলেও পরে খেলা আমাদের নিয়ন্ত্রণে আসে। বিশেষ করে মুস্তাফিজের ওভার থেকে আমরা দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়াতে পেরেছি। সত্য বলতে তার হাত ধরেই ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট এসেছে।’

তবে এদিন মুস্তাফিজের এমন পারফরম্যান্সের পাশাপাশি নজরে এসেছে তার জার্সিও। চেন্নাইয়ের হলুদ জার্সির বাম হাতে দুই স্টিকার থাকলেও, মুস্তাফিজের জার্সিতে ছিল কেবল একটি। আইপিএলের নিজস্ব লোগোর ওপরে SNJ গ্রুপের স্পন্সর স্টিকার না লাগিয়েই মাঠে নেমেছেন মুস্তাফিজ।

ভারতের SNJ গ্রুপের অ্যালকোহলিক পণ্য SNJ 10000 চেন্নাই সুপার কিংসের স্পন্সর হিসেবে আছে লম্বা সময় ধরে। সবশেষ ২০২২ সালে নতুন করে তিন বছরের জন্য সিএসকের সঙ্গে চুক্তি বৃদ্ধি করেছিল এই কোম্পানি। সেই সুবাদে অ্যালকোহল উৎপাদনকারী এই প্রতিষ্ঠানের লোগো জায়গা করে নেয় চেন্নাইয়ের জার্সিতে।

কিন্তু মুসলমান ক্রিকেটারদের এমন স্পন্সর গায়ে পরিধান করা নিষেধ বলেই কি না মুস্তাফিজ খেললেন সেই স্টিকার ছাড়াই। এর আগে চেন্নাইয়ের আরেক মুসলিম ক্রিকেটার মঈন আলীও মাঠে নেমেছিলেন SNJ গ্রুপের লোগো ছাড়াই।

 







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ