বৃহস্পতিবার ০৮ জুন ২০২৩ ২৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ইউক্রেনকে গোলাবারুদ দিচ্ছে পাকিস্তান
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৩, ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ

যুদ্ধের মধ্যেই দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা সম্পর্ক আরও বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে ইউক্রেন ও পাকিস্তান। রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়তে লড়তে গোলাবারুদ ঘাটতিতে পড়েছে ইউক্রেন। আর সেই অভাব মেটাতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ পাকিস্তান। বিনিময়ে ইসলামাবাদকে অত্যাধুনিক এমআই-১৭ হেলিকপ্টারের ইঞ্জিন ও আনুষঙ্গিক খুচরা যন্ত্রাংশ সরবরাহ করবে ইউক্রেন। গত বুধবার (২৬ এপ্রিল) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইকোনমিক টাইমসের এক বিশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, ইউক্রেন থেকে এমআই-১৭ হেলিকপ্টার ইঞ্জিন এবং হেলিকপ্টারগুলোর খুচরা যন্ত্রাংশ নেওয়ার জন্য ১৫ লাখ মার্কিন ডলারের একটি চুক্তি করেছে পাকিস্তান। চুক্তি অনুযায়ী, পাকিস্তানি সেনাবাহিনীকে এসব ইঞ্জিন ও যন্ত্রাংশ সরবরাহ করবে ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা কোম্পানি মোটর সিচ জেএসসি।

সম্প্রতি প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম সরবরাহের বিনিময়ে এমআই-১৭ হেলিকপ্টারগুলো আপগ্রেড করার জন্য পাকিস্তানকে সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল ইউক্রেন। সেই অনুযায়ী, প্লেনের ইঞ্জিন প্রস্তুতকারী একটি ইউক্রেনীয় সংস্থা পাকিস্তানের হেলিকপ্টারগুলো আপগ্রেড করতে সহায়তা করছে।

ইউক্রেন ও পাকিস্তানের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে ঘনিষ্ঠ সামরিক ও শিল্প সম্পর্ক বিদ্যমান। পাকিস্তান এ পর্যন্ত ৩২০টির বেশি ইউক্রেনীয় টি-৮০ইউডি ট্যাংক কিনেছে। ১৯৯১ থেকে ২০২০ সালের মধ্যে ইউক্রেন পাকিস্তানের সঙ্গে প্রায় ১৬০ কোটি ডলারের অস্ত্র চুক্তি সম্পন্ন করেছে। ইসলামাবাদ তাদের টি-৮০ইউডি ট্যাংক বহর মেরামতের জন্য কিয়েভের সঙ্গে ৮ কোটি ৫৬ লাখ ডলারের একটি চুক্তি করেছে বলে জানা গেছে।

২০২১ সালে পাকিস্তান ও ইউক্রেন সামরিক সম্পর্ক ঢেলে সাজাতে সম্মত হয়; বিশেষ করে প্রতিরক্ষা উত্পাদন, প্রশিক্ষণ, সন্ত্রাসবিরোধী কার্যকলাপ ও গোয়েন্দা ক্ষেত্রগুলোতে।

দ্য ইকোনমিক টাইমস বলছে, গত আগস্ট মাস থেকেই ইউক্রেনকে প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম সরবরাহ করছে পাকিস্তান। সংবাদমাধ্যমটির মতে, পাকিস্তান সম্ভবত বিশ্বের একমাত্র উন্নয়নশীল দেশ, যেটি পশ্চিমাদের পরিবর্তে ইউক্রেনে প্রতিরক্ষা সরঞ্জামের প্রধান সরবরাহকারী হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।

চলতি মাসের শুরুর দিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছিল, ইউক্রেনীয় সশস্ত্র বাহিনীকে ৩০ কোটি ডলার মূল্যের দুই লাখ রকেট সরবরাহের জন্য ২০২২ সালের ডিসেম্বরে পাকিস্তান অর্ডন্যান্স ফ্যাক্টরির সঙ্গে একটি চুক্তি সই করে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

সেই উদ্যোগের অংশ হিসেবে এ মাসে করাচি বন্দর হয়ে ইউক্রেনের টারনোপিল অঞ্চলে ১২২ মিলিমিটার হাই এক্সপ্লোসিভ ইয়ারমুক রকেট পাঠিয়েছে পাকিস্তান। আগের মতো এই চালানটিও ইউক্রেনে পৌঁছানোর জন্য পোল্যান্ডের গদানস্ক বন্দর ব্যবহার করা হয়।

পাকিস্তান থেকে ইউক্রেনে সামরিক সরঞ্জাম পৌঁছানোর ক্ষেত্রে প্রধান প্রবেশদ্বার হলো পোল্যান্ড ও জার্মানির বন্দরগুলো।

Please follow and like us:







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ