শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউরোপা কিং সেভিয়াকে শেষ মুহূর্তে ঠেকিয়ে দিলো জুভেন্টাস
প্রকাশ: শুক্রবার, ১২ মে ২০২৩, ১২:১৮ অপরাহ্ণ

স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়াকে ধরা হয় ইউরোপা লিগের কিং। ৬টি শিরোপা জিতেছে ক্লাবটি। এবারও সে পথে এগিয়ে যাচ্ছিল প্রায়। কিন্তু সেমিফাইনালের প্রথম লেগে জুভেন্টাসের মাঠে শেষ মুহূর্তে ফেডেরিকো গাত্তির গোলে ১-১ ব্যবধানে ড্র করে নিতে বাধ্য হয় দলটি।

মুষলধারে বৃষ্টি আর আলিয়াঞ্জ এরেনায় ইতালিয়ান দর্শকদের প্রচণ্ড চাপ- সব সামলে ইউরোপা লিগের ‘রাজা’ নামে পরিচিত সেভারিয়ার শুরুটা হয়েছিলো দুর্দান্ত। ‘রাজা’র মতোই খেলছিলো তারা। ম্যাচের প্রথমার্ধে একটি গোল করে এগিয়েও গিয়েছিলো তারা।

কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের শেষ মুহূর্তে এসে, ম্যাচের ইনজুরি টাইমে একটি গোল করে সেভিয়ার জয় কেড়ে নেন জুভেন্টাসের গাত্তি। তবে ফিরতি পর্বের ম্যাচটি সেভিয়ার নিজের মাঠে। ওই মাঠ থেকেই ফাইনাল নিশ্চিত করার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে সেভিয়ার।

সেভিয়া শুরুটা করেছিলো দুর্দান্ত। ম্যাচের একেবারে শুরুতেই মরক্কান স্ট্রাইকার ইউসেফ আন নেসরির দুর্দান্ত একটি হেড ফিরিয়ে দলকে রক্ষা করেন জুভ গোলরক্ষক। লুকাস ওকাম্পোসও একটি গোল মিস করেন। তবে দারুণ এক কাউন্টার অ্যাটাকে আননেসরি ২৬তম মিনিটে গোল করে সেভিয়াকে এগিয়ে দেন।

প্রথমার্ধের ঠিক আগ মুহূর্তে লিড বাড়িয়ে নেয়ার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিলেন আন নেসরি এবং ওকাম্পোস। দু’জনই সুন্দর সুযোগটা নষ্ট করে ফেলেন।

নখদন্তহীন জুভেন্তাস সেভিয়ার জাল লক্ষ্যে প্রথম শট নিতে সক্ষম হয় ৬৫তম মিনিটে। এর আগে শুধু নিজেদের জালই রক্ষা করে গেছে তারা। ৬৫তম মিনিটে পরিবর্তিত খেলোয়াড় স্যামুয়েল ইলিং জুনিয়র দুর পাল্লার শটে চেষ্টা করেন সেভিয়ার জাল ভেদ করতে। কিন্তু গোলরক্ষক ইয়াসিন বোনো বলটি ফিরিয়ে সেভিয়াকে রক্ষা করেন।

ম্যাচটা প্রায় শেষ হয়ে যাচ্ছিলো। ইনজুরি সময় চলছে তখন। ৯০+৭ মিনিটের সময় জুভেন্টাস কর্নার পায়। ফেডেরিকো চিয়েসা কর্নার কিক নেন। পল পগবা লাফিয়ে ওঠে ৬ গজ দুর থেকে হেড নেন। ভেসে আসা বলে আবারও হেড নেন ফেডেরিকো গাত্তি। বল জড়িয়ে যায় সেভিয়ার জালে। এরপরই শেষের বাঁশি বাজান রেফারি।

আগামী ১৯ মে সেভিয়ার মাঠে অনুষ্ঠিত হবে ফিরতি লেগের খেলা।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ