শনিবার ১৮ মে ২০২৪ ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে “বিজয়ী অ্যাওয়ার্ড-২০২৩” পোগ্রামে আসছেন ফারাজ করিম চৌধুরী
প্রকাশ: শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০২৩, ১১:২১ অপরাহ্ণ

মোঃ সফিউল্লাহ, বিশেষ প্রতিনিধিঃ  চাঁদপুরের প্রথম ফ্রি প্রশিক্ষন বেইজ নারী সংগঠন বিজয়ীর উদ্যোগে “বিজয়ী অ্যাওয়ার্ড- ২০২৩” এবং “বিজয়ী মেলা ২০২৩” অনুষ্ঠিতে আসছেন তরুণ সমাজ সেবক ও মানবিক ব্যক্তিত্ব ফারাজ করিম চৌধুরী।

আগামী ২৭ অক্টোবর শুক্রবার পুরানবাজার ডিগ্রী কলেজ মাঠে সকাল ৯টায় এই অনুষ্ঠান শুরু হবে। চারপাশের নানা রকম অনিয়মের বিপরীতে অবিরাম ছুটে চলা স্বপ্নবাজ তরুণ এবং একের পর এক ব্যতিক্রমী কর্মকাণ্ড সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তুলে ধরে গোটা দেশেজুড়ে তুমুল জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব ফারাজ করিম চৌধুরী বিজয়ী অ্যাওয়ার্ড ২০২৩ পোগ্রামে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীর নারী উদ্যোক্তাদেরসহ চাঁদপুরের মানুষদের অনুপ্রানিত করবেন। ফারাজ করিম চৌধুরীর ভেরিফাইড ফেইসবুক পেইজে চাঁদপুর আসার বিষয়টি কনফার্ম করে পোষ্ট দেন। সেই পোষ্ট দেখে আনন্দিত ও উচ্ছাসিত বিজয়ী এর সকল নারী উদ্যাক্তাগন।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিপু মনি এমপি, অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েলসহ দেশের সেরা ব্যক্তিত্ব। অনুষ্ঠানে সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন নারী উন্নয়ন সংস্থা বিজয়ী এর ফাউন্ডার তানিয়া ইশতিয়াক খান বলেন, ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই আমাদের প্রিয় মানুষ তরুন সমাজ সেবক ও মানবিক ব্যক্তিত্ব ফারাজ করিম চৌধুরীকে, ওনার এতো ব্যস্ততার মধ্যে চাঁদপুরের নারী সংগঠন বিজয়ীকে সময় দেয়ার জন্য আমারা সত্যিই কৃতার্থ। চাঁদপুরবাসী আপনাকে সারাজীবন শ্রদ্ধারসাথে স্মরনে রাখবে। আপনার অনুপ্রেরনামূলক বক্তব্য শোনার অপেক্ষায় টিম বিজয়ী।

তানিয়া খান আরও বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে “বিজয়ী তৈরিতে বিজয়ী” এই স্লোগানে নারীদের বিনামূল্যে হাতে কলমে বিভিন্ন হাতের কাজের প্রশিক্ষন দিয়ে তাদের তৈরি পণ্য প্রদর্শন ও বিপণনের সুযোগ করে দেয়ার মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীল ও আর্থিক স্বাবলম্বী করাই আমার মূল লক্ষ্য। সেই লক্ষ্যে ২০২০ সাল থেকে বিজয়ী এর স্বপ্নদ্রষ্টা আশিক খানের সার্বিক সহযোগীতায় নিজস্ব অর্থায়ানে নারী উন্নয়নে নিরলস কাজ করে যাচ্ছি বিজয়ী নারীদের নিয়ে। আলহামদুলিল্লাহ গত বছর প্রায় ৫ শতাধিক নারীকে ২০ টি প্রশিক্ষন করিয়েছি, আর সেখান থেকে অনেক নারী উদ্যোক্তা তৈরি হয়েছে। যাদের মধ্যে অনেকই এখন নিজেই পারিবারসহ স্বাবলম্বী।

এ বছর ২৬টি হাতে কলমে প্রশিক্ষনের মাধ্যমে ৮০০ শতাধিক নারী শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষন করানো হয়েছে। আশা করি এখান থেকে অনেক উদ্যোক্তা তৈরি হবে। প্রশিক্ষনের পাশাপাশি আমাদের অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন,শীত বস্র বিতরন, চিকিৎসা সেবা, ঔষধ বিতরন করা এবং অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরন, বিভিন্ন অকেশনে অস্বচ্ছল মানুষের মাঝে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরনসহ নানা রকম সেবা মূলক কাজ করা হয়েছে।

বিজয়ী এর মূল লক্ষ্য নারীদেরকে নিজ পরিচয়ে পরিচিতি করানো এবং তাদের পন্যগুলো বিশ্বের বুকে তুলে ধরা। বিজয়ী একমাত্র সংগঠন নারী উদ্যোক্তাদের সকল রকম সুযোগ সুবিধা বিনামূল্যে প্রদান করে।উল্লেখ্য, প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও বিজয়ী মেলায় ৩০ টি স্টলের থাকবে। মেলা শেষে সর্বোচ্চো সেলারকে “বিজয়ী বেস্ট সেলার এ্যাওয়ার্ড”-২০২৩ প্রদান করা হবে







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ