শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের ব্যয় হচ্ছে ২ হাজার ৩শ কোটি টাকা
প্রকাশ: শনিবার, ০৬ জানুয়ারি ২০২৪, ০৭:০৮ অপরাহ্ণ

রাত পোহালেই দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন। এরই মধ্যে দেশের ২৯৯টি সংসদীয় আসনে ভোট গ্রহণের সব প্রস্তুতি শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের ব্যয় ধরা হয়েছে ২ হাজার ৩শ কোটি টাকা। বিশাল অংকের এ বাজেটের সিংহভাগই খরচ হচ্ছে আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের পেছনে। তাদের জন্য বরাদ্দ হয়েছে হয়েছে ১ হাজার ২২৫ কোটি টাকা। আর নির্বাচন পরিচালনা বাবদ সম্ভব্য খরচ ১ হাজার ৫০ কোটি টাকা।

এবারের নির্বাচনে অংশ নিয়েছে ২৮টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের দেড় হাজারেরও বেশি প্রার্থী। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন ৪শ ৩৬ জন। এদিকে, সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল। বহুল আলোচিত দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণের প্রস্তুতি একেবারেই শেষ। দেশের অন্যতম বড় রাজনৈতিক দল বিএনপিসহ সমমনা ১৬ টি নিবন্ধিত দলের বর্জনের মধ্য দিয়েই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এ নির্বাচন। একজন প্রার্থীর মৃত্যুতে নওগাঁ-২ আসন বাদে ২৯৯ টি আসনে এখন কেবল ভোট শুরুর অপেক্ষা। সকাল আটটা থেকে বিরতিহীনভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট দিতে পারবেন ভোটাররা।

দেশের ৪৪ টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের মধ্যে ২৮ টি দল অংশ নিচ্ছে এবারের নির্বাচনে।  দলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রার্থী রয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের। প্রার্থীর সংখ্যা -২৬৬ , জাতীয় পার্টির, ২৬৫, তৃণমূল বিএনপি থেকে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন- ১৩৫, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির- ১২২, বাংলাদেশ কংগ্রেসের ৯৬, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের প্রার্থী সংখ্যা ৫৬।

এছাড়াও প্রার্থী দিয়েছে, বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোট,জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জাসদ, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, কল্যাণ পার্টি, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল।

এবারের নির্বাচনে মোট ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৪২ হাজার ২৫টি । এর মধ্যে দূর্গম ২ হাজার ৯৬৪ টি ভোট কেন্দ্র ছাড়া সবগুলো কেন্দ্রে ব্যালট বক্স পাঠানো হবে ভোট গ্রহণের কয়েক ঘণ্টা আগে। নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে মোট পুরুষ ভোটার সংখ্যা ৬ কোটি ৭ লাখ ৬৯ হাজার ৭৪১ জন। আর নারী ভোটার ৫ কোটি ৮৯ রাখ ১৮ হাজার ৬৯৯ জন। আর তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার সংখ্যা -৮৪৯ ।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের সার্বিক আইন-শৃংখলা নিশ্চিতে কাজ করছে সাত লাখ পুলিশ, আনসার, আনসার ব্যাটালিয়ান, রেব, কোস্টগার্ড ও বিজিবি সদস্য ও নৌবাহিনীর সদস্য। পাশাপাশি স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসাবে নিয়োজিত আছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। সেই সাথে সাড়ে তিন হাজার বিচারিক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে দায়িত্ব পালন করছেন এরই মধ্যে। আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক হিসাবে সংসদ নির্বাচন দেখতে ১৮৬ জনকে অনুমতি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তাদের মধ্যে ১২৭ জন পর্যবেক্ষক আর ৫৯ জন বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের কর্মী।  তবে দেশি পর্যবেক্ষকের সংখ্যা প্রায় ২১ হাজার।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ