শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেনজীরের অবৈধ সম্পদের পাহাড় আলিফ লায়লার কাহিনীকেও হার মানাচ্ছে
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০২:০৪ অপরাহ্ণ

দুর্নীতি দমন কমিশন দুদকের তদন্তে একে একে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে বেনজীরের অবৈধ সম্পদের তালিকা। রাজধানীর অভিজাত এলাকায় একদিনেই কিনেন বেশ কয়েকটি ফ্ল্যাট। এছাড়া স্ত্রীর নামে পাওয়া গেছে আরও প্রায় ৯১ একর জমি। তাদের অবৈধ সম্পদ একের পর এক জব্দের নির্দেশ দিয়েছে দুদক। আরও কী কী সম্পদের খোঁজ পেয়েছে দুদক সেই তথ্য তুলে ধরছেন এইচ এম নাহিয়ান। এ যেন আলিফ লায়লার কাহিনীকেও হার মানাচ্ছে। আলাদিনের চেরাগ ঘষলেই বের হয়ে আসছে মহামুল্যবান সম্পদ। পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদের সেই আলাদিনের চেরাগ থেকে একে একে বেরিয়ে আসছে এমনই বিপুল পরিমাণ অবৈধ সম্পদ।

যা দুর্নীতি দমন কমিশন দুদকের তদন্তে বেরিয়ে আসছে। এবার বেনজীর ও তার পরিবারের সদস্যদের আরও সম্পদের খোঁজ পেয়েছে দুদক। তাঁর স্ত্রী জীশান মীর্জার নামে পাওয়া গেছে আরও ২৭৬ বিঘা জমি। এছাড়া স্ত্রী ও এক মেয়ের নামে রাজধানীর অভিজাত এলাকা গুলশানে চারটি ফ্ল্যাটের সন্ধান পেয়েছে দুদক। ফ্ল্যাটগুলোর আয়তন মোট ৯ হাজার ১৯২ বর্গফুট। তবে অবাক করা বিষয় হল এই চারটি ফ্ল্যাটই কেনা হয়েছিল এক দিনে ২০২৩ সালের ৫ মার্চ। বেনজীর অবসরে যাওয়ার ছয় মাসের মধ্যে।

দাম দেখানো হয়েছিল মাত্র ২ কোটি ১৯ লাখ টাকা।  ভবনটির নাম র্যানকন আইকন টাওয়ার।চারটি ফ্ল্যাটের মধ্যে তিনটি তাঁর স্ত্রীর নামে। একটি ছোট মেয়ের নামে । দুটি ফ্ল্যাটের আয়তন ২ হাজার ৩৫৩ বর্গফুট, দাম ৫৬ লাখ টাকা করে। বাকি দুই ফ্ল্যাটের আয়তন ২ হাজার ২৪৩ বর্গফুট করে, দাম সাড়ে ৫৩ লাখ টাকা করে।নতুন করে যে ২৭৬ বিঘা জমি পাওয়া গেছে, তার পুরোটাই বেনজীর আহমেদের স্ত্রী জীশান মীর্জার নামে। জমিগুলো মাদারীপুরের সাতপাড় ডুমুরিয়া মৌজায়। ২০২১ ও ২২ সালের বিভিন্ন সময় ১১৩টি দলিলে এসব জমি কেনা হয়। দলিলমূল্য দেখানো হয় মোট ১০ কোটি ২২ লাখ টাকা।

জমি ও ফ্ল্যাট ছাড়াও দুদক বেনজীর আহমেদ ও স্ত্রী-সন্তানদের নামে ১৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও শেয়ার বাজারের তিনটি বিও হিসাব এবং ৩০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র খুঁজে পেয়েছে। দুই দফা মিলিয়ে আদালত বেনজীর ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের ৬২১ বিঘা জমি জব্দের আদেশ দিয়েছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি জমির মালিক বেনজীরের স্ত্রী জীশান মীর্জা। তাঁর নামে প্রায় ৫২১ বিঘা জমির খুঁজে পেয়েছে দুদক। বাকি জমি বেনজীর তার তিন মেয়ে ও এক স্বজনের নামে। দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২৬ মে বেনজীর ও তাঁর স্ত্রী-সন্তানের নামে থাকা সব সম্পদ জব্দের আদেশ দেন ঢাকা মহানগর আদালত।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ