শনিবার ২০ এপ্রিল ২০২৪ ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্মার্টফোন কেনার সময় গুরুত্বপূর্ন কিছু বিষয়
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৪:০৯ অপরাহ্ণ

স্মার্টফোন প্রয়োজন তো বটেই, সেই সঙ্গে ফ্যাশনের এক অন্যতম অনুষঙ্গ এটি। প্রয়োজনের জন্য একটি স্মার্টফোন কিনলেই যথেষ্ট। তবে স্মার্টফোন যারা শুধু কথা বলা ছাড়াও অন্যান্য কাজে ব্যবহার করেন, যেমন- ফাইল রাখা, ছবি তোলা, ভিডিও করা, সেগুলো এডিট করা এবং স্টোর করা, গেম খেলা কিংবা সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার। তাদের জন্য স্মার্টফোন হতে হয় একটু ভিন্ন ধরনের।

অর্থাৎ স্মার্টফোন কেনার সময় খেয়াল রাখতে হয়, আপনি যে স্মার্টফোনটি কিনছেন সেটি দিয়ে এই কাজগুলো করতে পারবেন কি না। অথবা কতটা করতে পারবেন। এজন্য ফোন কেনার যেসব কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে হবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক স্মার্টফোন কেনার সময় কী কী বিষয় খেয়াল রাখবেন-

প্রসেসর ও ব়্যাম
আপনার স্মার্টফোনটি কতটা স্মার্ট তা নির্ভর করে ফোনের প্রসেসরের উপর। তাই ফোন কেনার আগে এই প্রসেসরের উপর বিশেষ নজর রাখা উচত৷বর্তমানে সর্বাধুনিক প্রসেসর বলতে বাজারে আছে স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর। পাশাপাশি ৮০৫ চিপসেটটিও খুব ভালো মানের। তাই এটিকেও আপনি পছন্দ করতে পারেন। মূলত আপনার স্মার্টফোনটি কতটা দ্রুত কাজ করবে তা নির্ভর করে প্রসেসর ও ব়্যামের উপর।

ক্যামেরা
ক্যামেরা স্মার্টফোনের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর মধ্যে একটি। কারণ ভালো ছবি তোলার জন্য চাই ভাল মানের ক্যামেরা। যত বেশি মেগাপিক্সেল হবে ততই ভালো ছবি উঠবে আপনার স্মার্টফোনে। এছাড়া সেলফির জন্য ফ্রন্ট ক্যামেরার ভূমিকাও গুরত্বপূর্ণ। তাই সে দিকেও নজর দেওয়া উচিত ফোন কেনার আগে।

ব্যাটারির লাইফ
ব্যাটারির শক্তি নির্ধারিত হয় মোবাইল ফোনটি কেমন তার ওপর ভিত্তি করে। তবে বড় মাপের স্ক্রিনের মোবাইল বেশি ব্যাটারি শক্তি ক্ষয় করে। তাই শক্তিশালী ব্যাটারি প্রয়োজন হবে মোবাইলটি অনেক সময় ধরে চালু রাখার জন্য। বর্তমানে ৩০০০ এমএএইচ থেকে ৪০০০ এমএএইচ ব্যাটারি বাজারে পাওয়া যায়। তাই ফোন কেনার আগে ব্যাটারির দিকটিও বিশেষ গুরত্ব দেওয়া উচিত গ্রাহকের।

অপারেটিং সিস্টেম
অপারেটিং সিস্টেম বলতে বাজারে এখন অ্যান্ড্রয়েড অথবা উইন্ডোজ বেশ জনপ্রিয়। তাই আপনার পছন্দ যেটি সেটিই আপনি কিনতে পারেন। অ্যান্ড্রয়েডের ক্ষেত্রে ৫.০ এখন সবচেয়ে আপডেটেড। অন্যদিকে উইন্ডোজের ক্ষেত্রে আছে ৮.০১। তাই স্মার্টফোন কেনার আগে এই বিষয়ে নজর রাখুন।

ডিসপ্লের সাইজ
স্মার্টফোন কেনার আগে ফোনের ডিসপ্লে বা স্ক্রিনের আকারটি দেখে নেওয়া উচিত। এখন বড় স্ক্রিনের মোবাইল বেশি জনপ্রিয়। তবে আপনার ছোট ডিসপ্লে পছন্দ হলে সেক্ষেত্রে আপনি ছোট ডিসপ্লে’র স্মার্টফোন কিনতেই পারেন। তবে এটি আসলে নির্ভর করবে কোন সাইজের ডিসপ্লে ব্যবহারে আপনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন।

দাম ও বাজেট
স্মার্টফোন কেনার আগেই আপনার বাজেট ঠিক করে ফেলুন। এবার যে ফোনটি কিনতে চান সেটির দাম সম্পর্কে জেনে নিন। দামের সঙ্গে অবশ্যই আপোষ করবেন তবে সেটা ফোনের কেমন ফিচার পাচ্ছেন তা জেনে। অর্থাৎ আপনি যে স্মার্টফোনটি কিনতে চাচ্ছেন সেটির ফিচার ভালো হলে বাজেটের বাইরে গিয়ে তা কিনতে পারেন। বাজেট কম হলে হয়তো স্মার্টফোনে লেটেস্ট সব টেকনোলজি কিংবা সব ফিচার পাবেন না।

সূত্র: গ্যাজেটস নাও

 







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ